September 26, 2018

আ’লীগে সুবিদ আলী ভুইঁয়ার সময় শেষ হয়ে আসছে

ঢাকাঃ জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়ার ছায়াতলে বড়ো হওয়া সুবিদ আলী ভূইয়া পক্ষ ত্যাগ করে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। ছেলেকে করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান। নানা অভিযোগের পাহাড় জমেছে তার বিরুদ্ধে এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে জিয়াউর রহমানকে প্রথম রাষ্ট্রপতি বলার মতো বিতর্কিত মন্তব্য। এমনিতেই কোনঠাসা হয়ে পড়া সুবিদ সুবিদ আলী ভূইয়ার মনে হয় আওয়ামী লীগে দিন শেষ হয়ে আসছে। তার আসনে আগামী নির্বাচনে লড়তে পারেন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের একাধিকবার নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ও ইউকসুর সাবেক জিএস ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর।

এতোদিন তার জন্মভুমি দাউদকান্দিতে খুব একটা সময় না দিলেও গত ইউপি নির্বাচন থেকেই এলাকায় ব্যাপকভাবে কাজ করেছেন। নিজের পছন্দের প্রার্থীকে জয়ী করে এনেছেন। এলাকার উন্নয়নে নানা কাজ করছেন। আওয়ামী লীগের আসন্ন কাউন্সিলে তাকে কেন্দ্রীয় পদে দেখা যেতে পারে। সুবিদ আলী ভূইয়ার সাম্প্রতিক মন্তব্যের প্রেক্ষিতে অনেকেই তাকে নির্বাচনমুখী হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। তিনি অবশ্য এ কাজটি করে এসেছেন বেশ কিছু বছর থেকে।এলাকায় তার গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে।

পেশাজীবী সংগঠনের নেতা হিসেবে অগ্রণী ব্যাংকের দু’মেয়াদে পরিচালক করে মূল্যায়ন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরশাদের শাসনামলে ইউকসুতে জিএস নির্বাচিত হওয়া আব্দুস সবুরের ভালো সংগঠক হিসেবে পরিচিতি রয়েছে। এসবের সমন্বয়েই তাকে আগামী নির্বাচনে কুমিল্লা-১ আসনে প্রার্থী হিসেবে দেখা যেতে পারে। এসব নিয়ে মেজর জেনারেল (অব.) সুবিদ আলী ভুইয়ার মনে কষ্ট রয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় তিনি ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন।

প্রসঙ্গত: গত বুধবার একটি সংসদীয় কমিটির বৈঠকে জিয়াউর রহমানকে প্রথম রাষ্ট্রপতি বলার পর তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন সুবিদ আলী ভূইয়া। তার আওয়ামী লীগে থাকা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয় বলে বৈঠকে অংশ নেওয়া একাধিক সংসদ সদস‌্য জানিয়েছেন।

বর্তমান সংসদে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি সুবিদ আলী বিএনপি চেয়ারপাসন খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী থাকার সময় সশস্ত্র বাহিনীর প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার (পিএসও) ছিলেন। চাকরি শেষে বিএনপির মনোনয়ন চেয়েও না পেয়ে ২০০১ সালে কুমিল্লার দাউদকান্দি ((কুমিল্লা-১) থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরেছিলেন তিনি।

এরপর তিনি আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে ২০০৮ সালে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হয়ে বিএনপির প্রভাবশালী নেতা খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে হারিয়ে সংসদ সদস‌্য হন।নবম সংসদে বিদ‌্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পাওয়ার পর এবার দশম সংসদে ফের নির্বাচিত হয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত কমিটির সভাপতি হন সুবিদ আলী।

জিয়ার ছেলে তারেক রহমান গত বছর তার বাবাকে বাংলাদেশের ‘প্রথম রাষ্ট্রপতি’ বলার পর তীব্র সমালোচনার মধ‌্যে পড়েন। তার বক্তব‌্য-বিবৃতি প্রচারে পরে আদালতের নিষেধাজ্ঞাও আসে। এরপর সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ‌্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এক প্রকাশনায় জিয়াকে ‘প্রথম রাষ্ট্রপতি’ লেখা হলে তা নিয়ে ব‌্যাপক সমালোচনা হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি নিয়ে সুবিদ আলী ১৯৬৬ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছিলেন। ১৯৬৯ সালে ক্যাপ্টেন হিসেবে চট্টগ্রামে ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টে বদলি হন, যেখানে জিয়াউর রহমানও ছিলেন। একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের শুরুতে জিয়ার অধীনেই যুদ্ধ করেছিলেন সুবিদ আলী। জিয়ার স্ত্রী খালেদা জিয়া ১৯৯১-৯৬ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালনের সময় পিএসও ছিলেন তিনি।সূত্রঃ পার্লামেন্টনিউজ

Related posts