November 21, 2018

আরেক পীরকে গলাকেটে হত্যা

রাজশাহী: এবার রাজশাহীতে এক পীরকে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। শুক্রবার রাত ১০টার দিকে পুলিশ রাজশাহী তানোর তানোর উপজেলার জুমারপাড়ায় শহিদুল্লাহ নামে ওই পীরের ডান কাঁধে কুপিয়ে ও গলা কাটা লাশ উদ্ধার করে। নিহত শহিদুল্লাহ রাজশাহীর পবা উপজেলার নওহাটা পৌর এলাকার মহানন্দখালী মহল্লার মৃত হাবিবুর রহমানের পুত্র।

এ ঘটনায় তানোর থানায় মামলা করেছে হত্যার শিকার ওই পীরের ছেলে রাসেল আহমেদ।

তিনি জানান, তার বাবা তরিকাপন্থী ছিলেন। অন্য মতাদর্শের লোকেরা তাকে হত্যা করতে পারে। তার পিতা শহিদুল্লাহ (৫৫) রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার পীর ইমাম মেহেদীর খলিফা ছিলেন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ি থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর এলাকার গোলাবাড়ি গ্রামে ভক্তদের বাড়িতে যাওয়ার কথা বলে বের হন।

নিহতের পরিবারের সদস্যরা আরও জানান, প্রায় সময় তাদের বাড়িতে বিভিন্ন এলাকা থেকে ভক্তরা আসতেন। এছাড়া তিনিও ভক্তদের বাড়িতে যেতেন।

তাছাড়া মামলার বিবরণে বলা হয়েছে, পবা উপজেলার নওহাটা এলাকার মৃত আব্দুল মালেকের পুত্র শাজাহান ও পিয়ার আলীর সঙ্গে গত ১০বছর ধরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ছিলো নিহত শহিদুল্লাহর।

তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুর রাজ্জাক জানান, শুনেছি সালাউদ্দিন পীর ছিলেন। তার বাড়িতে মুরিদেরা আসত। মুরিদদের সঙ্গে তার বিরোধ কিংবা কারো সাথে ব্যক্তিগত বিরোধ ছিল কিনা- এ দুটি বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Related posts