November 17, 2018

আবারো ভারত সফরে বাংলাদেশ?

India's Ravindra Jadeja (2L) celebrates the wicket of Bangladesh's Shakib Al Hasan on the fifth day of a solo Test match between India and Bangladesh at the Rajiv Gandhi International Cricket Stadium  on February 13, 2017. IMAGE RESTRICTED TO EDITORIAL USE - STRICTLY NO COMMERCIAL USE----- / GETTYOUT / AFP PHOTO / NOAH SEELAM / ----IMAGE RESTRICTED TO EDITORIAL USE - STRICTLY NO COMMERCIAL USE----- / GETTYOUT
India’s Ravindra Jadeja (2L) celebrates the wicket of Bangladesh’s Shakib Al Hasan on the fifth day of a solo Test match between India and Bangladesh at the Rajiv Gandhi International Cricket Stadium on February 13, 2017. IMAGE RESTRICTED TO EDITORIAL USE – STRICTLY NO COMMERCIAL USE—– / GETTYOUT / AFP PHOTO / NOAH SEELAM / —-IMAGE RESTRICTED TO EDITORIAL USE – STRICTLY NO COMMERCIAL USE—– / GETTYOUT

ঐতিহাসিক ভারত সফর শেষে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকায় পৌঁছান টাইগাররা। সিরিজ শেষে হলেও মুশফিকদের আশা দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ খেলতে আবারো আমন্ত্রণ জানাবে ভারত।

হায়দরাবাদ টেস্ট হতাশ করেনি কোন পক্ষকেই। শেষ দিন গ্যালারিতে বসা ছিল ৯ হাজার ৫২০ জন দর্শক। টেলিভিশনওয়ালারাও হতাশ হননি, ম্যাচ চলেছে পাঁচ দিনের দ্বিতীয় সেশন পর্যন্ত। তাহলে কি এবার বাংলাদেশ নিয়মিত ভারতের মাটিতে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলতে পারবে?

ভবিষ্যতে ভারত সফরের জন্য খুব বেশি অপেক্ষা করতে হবে না আশা মুশফিকের।

হায়দরাবাদ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট রামকৃষ্ণা রাও গতকালও বললেন, ‘বাংলাদেশকে এই আতিথেয়তা দিতে পেরে আমরা খুশি। ভবিষ্যতে আবারো এ দলটিকে আমরা এই মাঠে স্বাগত জানাতে চাই।’

ভারতীয় সাংবাদিকরাও অনেকে বলাবলি করছিলেন, এ বছরই ডিসেম্বরে পাকিস্তান আসার কথা ছিল ভারতে, সেটা হয়তো বর্তমান রাজনৈতিক কারণে সম্ভব নয়। ওই সময় বন্ধুপ্রতিম বাংলাদেশ আর শ্রীলঙ্কাকে নিয়ে নাকি একটা ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজ আয়োজনের ভাবনা রয়েছে ভারতীয় বোর্ডের।

মুশফিকও চান, যে অভিজ্ঞতা হলো এই একটি টেস্টে, তা থেকে শিক্ষা নিয়ে আর একবার অন্তত এখানে আসতে। ভারত আমন্ত্রণ জানাবে কি-না তা জানা নেই মুশফিকের। তবে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে মুশফিক তার ইচ্ছাটি গোপন করেননি।

টেস্ট অধিনায়ক বলেন, ‘আমারও ইচ্ছা আমার অবসরের আগে যেন আমি অন্তত আরো একটা টেস্ট ভারতের মাটিতে খেলতে পারি। আমি মনে করি, নাম্বার ওয়ান দলের সাথে খেলতে পেরে অনেক কিছু শিখতে পেরেছি। তারা কীভাবে কাজ করে, কীভাবে অন ও অফ দ্য ফিল্ডে থাকে এবং তারা বোলিং-ব্যাটিং বা ফিল্ডিংয়ে সব কিছু কীভাবে করে, তা কাছ থেকে দেখতে পেরেছি। এসব কিছু আমাদের শেখার জায়গা ছিল। আমরা খুব বেশি খারাপ খেলিনি। আশা করছি যদি ভারত আমন্ত্রণ জানায় আরও ভালো খেলার চেষ্টা করব এখানে এসে।’

তবে মুশফিক জানেন না, পরের সফরের জন্য ঠিক আর কত বছর অপেক্ষা করতে হবে তাকে।

এদিকে, দেশে ফিরলেও অবসর পাচ্ছেন না ক্রিকেটাররা। চলতি মাসেই যেতে হবে শ্রীলঙ্কা সফরে। আগামী ২৭ বা ২৮ ফেব্রুয়ারি শ্রীলঙ্কার উদ্দেশ্যে রওনা দিবে বাংলাদেশ। সফরে দুটি করে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি এবং তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ।

Related posts