September 25, 2018

‘আবারো বলছি, ভারত ৪-০ ব্যবধানেই জিতবে’

gঅস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারত ৪-০ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজ জিতবে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ৪-০ ব্যবধানে ভারতের জয়ের পর এমন মন্তব্য করেছিলেন দেশটির সাবেক সফল অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী।

তার ওই মন্তব্য চোখ রাঙ্গিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক সফল অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহ, ‘এটা খুব বোকার মত কথা। আমার মনে হয় সিরিজের ফল যেকোন কিছুই হতে পারে।’

স্টিভ ওয়াহ’র ওই মন্তব্য শুনেই আবারো মুখ খুললেন গাঙ্গুলী। তার পুরনো ভবিষ্যবাণীর ওপর দাঁড়িয়ে আবারো জোড় গলায় ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ নিয়ে গাঙ্গুলী বললেন, ‘দুবাইয়ে প্রস্তুতি শিবির করুক বা অনেক পরিকল্পনাই নিয়ে খেলতে নামুক, সিরিজ শেষে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারত ৪-০ ব্যবধানেই জিতবে।’

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পরই ভারতের আসন্ন বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার সিরিজ নিয়ে নিজের অভিমত জানিয়েছিলেন গাঙ্গুলী। বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেও সিরিজ জিতবে ভারত। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪-০ ব্যবধানে জিতবে ভারত।’

গাঙ্গুলীর ওই মন্তব্য ভালো লাগেনি অস্ট্রেলিয়ার সাবেক সফল অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহ’র। তাই বাধ্য হয়েই মুখ খুলেন তিনি, ‘ভালো খেলার সামর্থ্য আমাদেরও রয়েছে। মিচেল স্টার্কের মত বিশ্বসেরা পেসার রয়েছে। স্পিনারও ভালো। সিরিজের ফল যেকোন কিছুই হতে পারে।’

ওয়াহ’র এমন মন্তব্য শুনে আবারো ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ নিয়ে কথা বললেন গাঙ্গুলী, ‘ভারতের আসার আগে অস্ট্রেলিয়া দুবাইয়ে কন্ডিশনিং ক্যাম্প করেছে। কন্ডিশনের সাথে মানিয়ে নিতে এটা যেকেউ করতে পারে। কিন্তু দিনের শেষে মাঠে গিয়ে সামর্থ্যের পরীক্ষা দিতে হয় খেলোয়াড়দের। সে দিক দি‡য় ভারতই এগিয়ে। আমার তো মনে হয় না, ওরা দুবাইয়ে কন্ডিশনিং ক্যাম্প করে সফল হবে। হয়তো ভারতকে চ্যালেঞ্জ ছুঁেড় দিতে পারে। তবে সিরিজ শেষে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারত ৪-০ ব্যবধানেই জিতবে।’

ভারত ৪-০ ব্যবধানে কেন জিতবে, সেই বিশ্লেষণও করেছেন গাঙ্গুলী। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের উদাহণ টেনে এনে গাঙ্গুলী বলেন, ‘ইংল্যান্ড সিরিজের আগে বলেছিলাম ভারত ৫-০ ব্যবধানে জিতবে। কিন্তু ৪-০ ব্যবধানে জিতেছে। ইংল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়া শক্তির বিচারে প্রায় সমান। ইংলিশদের দলে ভাল স্পিনার ছিল না। অস্ট্রেলিয়ার নাথান লিঁও ছাড়া কেউ নেই। তবে লিঁও উচুঁ মানের স্পিনার নয়। অস্ট্রেলিয়া যদি একটুও এই কন্ডিশনে সুবিধা পায়, তবে সেটা উইকেট থেকে পেতে পারে। গত সফরের ভাল, স্পোর্টিং উইকেট এবার হয়েছে ভারতে। এটাই একমাত্র সুবিধা হতে পারে স্মিথদের। তবে বল ঘুরতে শুরু করলে দাপট দেখাবে ভারতীয় স্পিনাররাই।’

ভারতের কন্ডিশনে স্বাগতিকদের ২০ উইকেট নেয়ার সার্মথ্য অস্ট্রেলিয়ার নেই বলে জানান গাঙ্গুলী। এদিক দিয়েই সবচেয়ে বেশি পিছিয়ে অসিরা বলেন মনে করেন তিনি, ‘ম্যাচে ভারতকে দুই ইনিংসেই অলআউট করতে পারবে এমন বোলার অসিদের আছে কি? ভারতের উইকেট ও কন্ডিশনে ২০টি উইকেট নেওয়ার মতো বোলারই তাদের নেই। টেস্ট জিতবে কী করে? এখানেই অস্ট্রেলিয়া পিছিয়ে। উপমহাদেশের মাটিতে টেস্ট সিরিজ জিততে হলে স্পিন বোলিংটা যেমন ভাল করতে হবে, তেমনি স্পিনের বিপক্ষে ভাল খেলতেও হবে। ওরা কি দু’টো জিনিসে পারমদর্শী? আমার মনে হয় না। উপমহাদেশে শেষ ২০ বছরে কত টেস্ট হেরেছে অস্ট্রেলিয়া, পরিসংখ্যান দেখলেই তা স্পষ্ট হবে।’

স্লেজিং দিয়ে ভারতকে দুর্বল করে দেয়ার অস্ত্রও হাতে আছে অস্ট্রেলিয়ার। সফরকারী দলপতি স্টিভেন স্মিথের এমন ফর্মুলার জবাবও দিয়েছেন গাঙ্গুলী, ‘স্লেজিং দিয়েই কি টেস্ট জয় করা যায়? আমার মনে হয় না। আগে পারফরম্যান্স, তারপরও স্লেজিং। স্লেজিং-এর সাথে পারফরমেন্সের কোন সর্ম্পক নেই।’

Related posts