September 23, 2018

আপনার মনের মতো চাকরি আসলে কোনটি?

কর্মজীবনে কোন পথে এগোবেন? এ চিন্তাটা বড়ই ধোঁয়াশাপূর্ণ। তবে পছন্দের চাকরি খুঁজে পেতে কোন কাজ ভালো লাগে তা বুঝে ওঠাটাই গুরুত্বপূর্ণ নয়। বুঝতে হবে বছরের পর বছরের কাজটি আপনার ভালো লাগবে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই চাকরিপ্রার্থীরা নিজের পছন্দের কাজটি শনাক্ত করতে পারেন না। আবার অনেক ভালো কাজের সুযোগ নষ্ট করা হয়। এ ক্ষেত্রে দূরদৃষ্টিসম্পন্ন হতে পারেন না প্রার্থীরা।

হাফিংটন পোস্টের প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে বিজনেস ইনসাইডা জানায়, ইউনিভার্সিটি অব শিকাগোর সুথ স্কুল অব বিজনেসের এক দল গবেষক ধারাবাহিক গবেষণা পরিচালনা করেন।

এক পরীক্ষায় শরীরচর্চা কেন্দ্রে নিয়মিত ব্যায়াম করেন এমন ৫৪ জনকে বেছে নেওয়া হয়। তাদের ওরপ দুই ধরনের জরিপ চালানো হয়। একটা জিমেই করা হয়। আরেকটি জরিপ এক সপ্তাহ পর ইমেইলের মাধ্যমে পরিচালিত হয়।

প্রথম জরিপে তাদের কাছে জানতে চাওয়া হয়, এই মুহূর্তে কোন ব্যায়ামটি তারা উপভোগ করছেন? দ্বিতীয় জরিপে জানতে চাওয়া হয়, এসব বিবেচনা করে পরের সপ্তাহে কোন কোন ব্যায়াম তারা বেশি বেশি করবেন?

কোনো বিশেষ ধরনের ব্যায়াম উপভোগ করার অর্থ হলো, তারা এ কাজটি করতে পছন্দ করেন। অন্যদিকে, ব্যায়াম করে শক্তিশালী হয় ওঠা দৈহিক ও মানসিক শান্তির বিষয়। ব্যায়াম শেষের পর আসে তৃপ্তি। আবার ব্যায়াম ভালো লাগার বিষয়টি অন্তর্নিহিত শান্তির ব্যাপার।

জিমনেশিয়ামে প্রবেশ করে তারা দুই হাতে দুটো ওজন নিয়েই অনুভব করেন, তারা এ কাজটি কতটা উপভোগ করবেন। তবে আগামী এক সপ্তাহের জন্যে কোন ব্যায়ামটি উপভোগ্য হবে, তা বুঝতে বেশ সমস্যা হয়।

১২০ জন মানুষের একটি দলকে দুই ধরনের শব্দ শুনতে দেওয়া হয়। একটি দলকে একটি নির্দিষ্ট গান শুনতে দেওয়া হয়। বলা হয়, এ গানটি শুনলে ২ ডলার দেওয়া হবে। দ্বিতীয় দলকে দেওয়া হয় অ্যালার্মের শব্দ। বলা হয়, এটি শুনলে আড়াই ডলার প্রদান করা হবে। পরীক্ষায় দেখা যায়, এ শব্দগুলোকে তারা কিভাবে গ্রহণ করছেন। কোনো কাজের আগে তারা গানকেই বেশি পছন্দ করছেন। এমনকি অ্যালার্মের আওয়ার শোনার কারণে বেশি অর্থ প্রদান করা হলেও তারা এই শব্দ শুনতে রাজি নন।

প্রধান গবেষক আইলেট ফিশব্যাচ জানান, অর্থের কারণে কিছু পছন্দ করা হয় সাময়িকভাবে। কিন্তু ভালো লাগার বিষয়টি দীর্ঘমেয়াদি। আর পরবর্তীতে এটাই করতে চায় মানুষ। এতে অর্থ কম থাকলেও সমস্যা নেই। তাই পছন্দের কাজের পেছনে মানুষ বেশি শ্রম ঢালতেও প্রস্তুত।

এটা মনে হয় যে, পারিশ্রমিক বেশি মানেই চাকরিটা ভালো। কিন্তু কিছু দিন পেরোনোর পর তাতে আর মন বসে না। তাই দীর্ঘমেয়াদে পছন্দের কাজটিই জরুরি। তাই ভালো বেতনের চাকরি পেয়েও অনেক সময় খরচের পর মনে হয় যে, সিদ্ধান্তটা ভুল ছিল।

তাই সবমিলিয়ে বলা যায়, এমন একটা চাকরি খুঁজতে হবে যা জীবন চালাতে চলনসই পারিশ্রমিক প্রদান করে। তার সঙ্গে কাজটি করতে আপনি ভালোবাসেন। এটা এমন এক কাজ, যা এমনিতে করতেই ভালো লাগে আপনার।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts