September 21, 2018

‘আন্দোলন দমাতে পরিকল্পিতভাবে আমাকে বদলি করা হয়েছে’

ঢাকাঃ  মন্ত্রণালয়ের জারিকৃত বদলির আদেশের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে বাংলাদেশ নার্সেস ঐক্যপরিষদের আহ্বায়ক ইসমত আরা পারভীন বলেছেন, ‘স্বাস্থ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কথা বলায় আন্দোলন দমিয়ে দিতে পরিকল্পিতভাবে আমাকে বদলি করা হয়েছে।’

আন্দোলনরত বেকার নার্সদের দাবির সঙ্গে একত্মতা পোষণ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করায় রোববার (২৪ এপ্রিল) মন্ত্রণালয়ের জারিকৃত আদেশের পর এমন প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন পারভীন। উল্লেখ্য, পারভীনকে ঢাকা থেকে টেকনাফে বদলির আদেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পণা মন্ত্রণালয়।

এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘বেকার নার্সদের আন্দোলনে একাত্মতা পোষণ করে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছি এবং বদলি বাণিজ্য নিয়ে ব্যস্ত থাকা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ চেয়েছি। যে কারণে নার্সদের এই নায্য অধিকার আদায়ের আন্দোলন দমিয়ে দিতে আমার বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বদলির কথা আমি শুনেছি, কিন্তু আদেশের কপি এখনও হাতে পাইনি।’

আদশের কপি হাতে পেলে নতুন কর্মস্থলে যোগ দিবেন কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে এ নার্সনেত্রী বাংলামেইলকে বলেন, ‘বদলির কপি হাতে পেলে আমাদের (নার্স) যেসব সংগঠন আছে তাদের সাথে কথা বলে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেব।’

প্রসঙ্গত, ইসমত আরা পারভীন গত ২০ এপ্রিল জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আন্দোলনরত বেকার নার্সদের দাবির সঙ্গে একত্মতা ঘোষণা করে মানববন্ধন থেকে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছিলেন।

সেদিন বক্তব্যে পারভীন বলেছিলেন, ‘স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এখন বদলি বাণিজ্য নিয়েই ব্যস্ত। তাকে ফোন দিলে তিনি তা না ধরে তার স্ত্রীর কাছে দিয়ে দেন। আপনি (স্বাস্থ্যমন্ত্রী) চাকরি খেলেও ভয় করি না, নার্সদের দাবি না মানলে দেশের সকল হাসপাতাল বন্ধ করে দেয়া হবে।’

ইসমত আরা অভিযোগ করে বলেছিলেন, ‘ওনাকে (স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে) ফোন দিলে উনি ওনার ফোনটা ওয়াইফকে (স্ত্রী) ধরিয়ে দেন। আমি আমার নার্সদের ব্যাপারে বারবার কথা বলেছি, উনি একবারও কর্ণপাত করেননি। উনি আছেন শুধু বদলি বাণিজ্য করার জন্য।’

তিনি ক্ষোভের সাথে বলেছিলেন, ‘অনেকদিন বেকার নার্সরা রাস্তায় বসে আছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর জিজ্ঞাসা করা উচিত ছিল- আসলে তোমরা কি চাও। তোমাদের আমি কি উপকার করতে পারি। তোমরা আসো আমাদের সাথে আলোচনা করো।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করে ইসমত আরা পারভীন বলেছিলেন, ‘মোহাম্মদ নাসিম স্বাস্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার পর খুবই আনন্দিত হয়েছিলাম। কিন্তু এখন ওনাকে ধিক্কার জানাই, ওনার পদত্যাগ চাই।’

নার্সদের দপ্তরে আমলারা বদলি বাণিজ্য করে খাচ্ছে এমন অভিযোগ তুলে তিনি আরো বলেছিলেন, ‘সাংবাদিক ভাইয়েরা আপনারা নার্সদের দপ্তরে যান, গেলে দেখতে পারবেন- আমলারা কিভাবে বদলি বাণিজ্য করছে।’

তার এই বক্তব্যের একদিন পরেই (২১ এপ্রিল) স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পণা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব লুৎফর রহমান তার বিরুদ্ধে বদলির আদেশ জারি করেন। আদেশে বলা হয়েছে, বদলির আদেশ জারির তিন কর্মদিবসের মধ্যে কর্মস্থলে যোগদান করতে হবে। অন্যথায় চতুর্থ কর্মদিবসের দিন তিনি তাৎক্ষণিকভাবে অব্যাহতিপ্রাপ্ত বলে গণ্য হবেন।

এ বদলি আদেশের আগ পর্যন্ত বেগম ইসমত আরা পারভীন রাজধানীর মহাখালীতে অবস্থিত কলেজ অব নার্সিং এর প্রভাষক (নিজ বেতনে) পদে নিযুক্ত ছিলেন। তবে তার মূলপদ সিনিয়র স্টাফ নার্স।

উল্লেখ্য, টানা ২১ দিন ধরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে বেকার নার্সরা। সিনিয়র স্টাফ নার্স পদে পরীক্ষার মাধ্যমে নিয়োগের জন্য গত ২৮ মার্চ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পাবলিক সার্ভিস কমিশন (পিএসসি)। এর প্রতিবাদে এবং বিজ্ঞপ্তি বাতিল করে পূর্বের মতো ব্যাচ, মেধা ও জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে নিয়োগের দাবিতে তারা চলতি মাসের ৪ এপ্রিল থেকে প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন শুরু করে বেকার নার্সরা।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/২৪ এপ্রিল ২০১৬

Related posts