September 26, 2018

আগের অবস্থানেই রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, বাংলাদেশে ফের নির্বাচনের দাবি!

ঢাকাঃ  বাংলাদেশের ২০১৪ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে পূর্ববর্তী অবস্থান বদলায়নি যুক্তরাষ্ট্র। অতীতের মতো করেই তারা এখনও মনে করছে, ওই নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক ও গ্রহণযোগ্য হয়নি। যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে, বাংলাদেশে নতুন একটি অবাধ-সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন চান তারা।

বুধবার দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাপ্তাহিক ব্রিফিংয়ে মুখপাত্র জন কিরবি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশে নির্বাচনের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র তার আগের অবস্থান বহাল রেখেছে উল্লেখ করে কিরবি বলেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র এখনো একটি অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দেখতে চায়। এ বিষয়টিতে আমাদের পূর্বের অবস্থান এখনও অটুট রয়ে গেছে, এটায় কোনও পরিবর্তন ঘটেনি।’

ব্রিফিংয়ে একজন প্রশ্নকারী কিরবিকে জিজ্ঞেস করেন, ‘গত ২০১৪ সালে বাংলাদেশ জাতীয় নির্বাচন হয়েছিল। আর সেটি ছিলো একতরফা নির্বাচন। নির্বাচনের পরই বাংলাদেশে গণতন্ত্র পুন:প্রতিষ্ঠার জন্য একটি অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজনের জন্য তাগাদা দিয়েছিলো যুক্তরাষ্ট্র। বর্তমানে এ বিষয়টিতে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান কি?’ উত্তরে কিবরি জানান, ‘আমরা এখনও একটি অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দেখতে চাই। আমরা এখনও চাই, বাংলাদেশের মানুষেরা যেন একটি গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে পারে। পৃথিবীর অন্যান্য জাযগার মতো আমরা বাংলাদেশেও মানবাধিকারের প্রতিষ্ঠা ও সংবাদমাধ্যম এবং মত প্রকাশের স্বাধীনতা দেখতে চাই। সত্যিকার অর্থে আমাদের আগের অবস্থান এখনও অটুট রয়ে গেছে, এটার কোনও বদল হয়নি।’

ব্রিফিংয়ে ইউএসএআইডির কর্মকর্তা জুলহাস মান্নান ও বান্দরবনের বৌদ্ধ সন্নাসীর হত্যাকাণ্ড নিয়েও প্রশ্ন করা হয় জন কিরবিকে। তিনি জানান, এ ব্যাপারে তার কাছে পর্যাপ্ত তথ্য নেই।

সূত্র: ইউএস স্টেট ডিপার্টমেন্টের ওয়েবসাইট

Related posts