September 20, 2018

আইপিএল ক্রিকেট নিয়ে রমরমা জুয়া!

এ কে আজাদ,চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধিঃ  চাঁদপুর শহরের পুরানবাজার ও হাজীগঞ্জ উপজেলা সদরে আইসিসি ক্রিকেট খেলা নিয়ে গত ক’বছর ধরে জুয়া খেলায় মেতে উঠেছে বেসকিছু জুয়াড়ী। এরই ধারাবাহীকতায় বর্তমানে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল) খেলাকে কেন্দ্র করে জুয়ার পরিমাণ আরো বেড়ে গেছে।

তবে ক্রিকেট নিয়ে জুয়ার পেছনে প্রায় দু’শতাধীক মধ্যস্থতাকারী দালাল চক্রের মূক্ষ ভূমিকা রয়েছে। যারা দু’পক্ষের কাছ থেকে খেলার আগেই বাজীধরার নগদ অর্থ তাদের হাতে নিয়ে রাখে।

এসব মধ্যস্থতাকারী দালালরা নিজেরাই তাদের সুবিদা অনুযায়ী ম্যাচ নিয়ে বড় অঙ্কের অর্থের অফার বেচা-কেনা করছে খেলা প্রেমী ও বাজিমাত কারীদের কাছে।

উভয় পক্ষ থেকে নগদ অর্থ নিয়ে রমরমা বাণিজ্য করে আসছে এসব দালাল চক্র। আবার মাঝে মধ্যে অনেকেই এদের কাছে প্রতারিত হয়ে সর্বস্ব হারাচ্ছে। ক্রিকেট খেলা নিয়ে জুয়া বানিজ্যের ব্যাপারটি প্রশাসনের জানানেই বিধায় তা বন্ধ করতেও তেমন কোনো নজরদারী নেই।

অনুসন্ধানে জানা যায়, চাঁদপুর পুরান বাজারের বেসকিছু এলাকায় রাস্তার পাশের চায়ের দোকানে বসে খেলা নিয়ে হাজার হাজার টাকার জুয়া চলছে। এই জুয়ায় হেরে অনেকেই পথে বসতে চলেছে। খেলা নিয়ে জুয়ার ঘটনায় বড় ধরনের সংঘর্ষও হয়ে গেছে। স্থানীয় ফারী পুলিশ ওই ঘটনায় দু একজনকে আটকও করেছে। কিন্তু জুয়া খেলা বন্ধ করা সন্বভ হয়ে উঠেনি। অপর দিকে হাজীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন স্পটে চলছে ক্রিকেট খেলা নিয়ে রমরমা জুয়ার আসর।

হাজীগঞ্জ পৌর ও উপজেলার যে সকল বিভিন্ন স্পটে এগুলো হচ্ছে সেই জায়গা গুলো হলো পৌর হর্কাস মার্কেট  ,পশ্চিম বাজার বালুর মাঠ , ডিগ্রি কলেজ রোড ,পৌর  টার্মিনাল ,পশ্চিম বাজার বাস ষ্ট্যান্ড , ডাকাতিয়া নদীর দক্ষিন পাড়ে ও ১১নং ওয়ার্ড ,ধেররা এলাকায় ,বলাখাল ও আলীগঞ্জ সহ গ্রাম গুঞ্জের বিভিন্ন পাড়া মহল্যায় প্রায় ২শতাধিক দালাল দৈনিক আইপিএল খেলা নিয়ে জুয়া বানিজ্যে ব্যস্থ সময় পার করছে।

দেখা যায় এসব দালাল চক্র প্রতিদিন বিকাল থেকে শুরুকরে গভীর রাত পর্যন্ত জুয়া বাণিজ্যে কাজ করে যাচ্ছে। সরাসরি গ্রাহক না পেলে তাদের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে দৈনিকের অফার বেছা-কেনা করছে।

আবার অনেক সময় নগদ টাকা সামনে রেখে প্রতি বলে বলে বাজি চলে আসছে। এসব দালালদের কাছে শুধু টাকা আর টাকা,সাহস নিয়ে এখানে আসলে হয় টাকা আসবে আর নয়তো জাবে। কিন্তু তাতে কি এক দিকে খেলায় খেলায় সময় পার অন্য দিকে নগদ টাকা আসতেছে আবার যাচ্ছে। এবাবে দৈনিক চলছে ক্রিকেট নিয়ে হাজীগঞ্জে রমরমা জুয়ার অর্থ বানিজ্য।

আইপিল বাণিজ্যে ক্ষতিগ্রস্থ কয়েকজন বাজিকরের সাথে আলাপ করলে তারা বলেন, আমাদের টাকা নিয়ে এসব দালাল চক্র রাতারাতি অনেক টাকার মালিক হয়ে যাচ্ছে। আমাদের কাছ থেকে লাভের কমিশন সাথে সাথে কেটে নেয়,কিন্তু লোকসানের সময় তাদের কাছ থেকে এক কাপ চায়ের পয়শাও পাওয়া যায় না।বর্তমানে আমরা বাবা মা কিংবা স্বজনদের কাছ থেকে আনা লক্ষ লক্ষ টাকা জুয়া খেলায় হেরে পথে বসতে হয়েছে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/১০ মে ২০১৬

Related posts