November 19, 2018

আইএস ওবামা-হিলারির সৃষ্টি—ট্রাম্প

ডোনাল্ড ট্রাম্প

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ  বারাক ওবামার প্রশাসনই জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সৃষ্টি করেছে। আর এ কাজে ওবামাকে সহযোগিতা করেছেন তাঁর সাবেক মন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন।

আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের দৌড়ে এগিয়ে থাকা ডোনাল্ড ট্রাম্প উল্লেখিত অভিযোগগুলো করেছেন। স্থানীয় সময় শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের মিসিসিপি অঙ্গরাজ্যের বিলোক্সিতে এক নির্বাচনী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

তেলের জন্য আইএসের মতো সংগঠন যে গঠন করা হতে পারে, সে সম্পর্কে তিনি আগে থেকেই জানতেন বলে দাবি ট্রাম্পের। নিজের অনুমান ক্ষমতা প্রবল বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আইএসের উত্থানের জন্য ওবামা ও হিলারিকে দায়ী করে ট্রাম্প বলেন, ‘তাঁরা ছিলেন কয়েকজন অসাধু ব্যক্তির দল। তাঁরা আইএস তৈরি করেছেন। ওবামার সঙ্গে মিলে হিলারি ক্লিনটন আইএস তৈরি করেছেন। তবে আমি এসব আগে থেকেই জানতাম। শেষ পর্যন্ত আপনাদের দূরদর্শী একজনকে প্রয়োজন হবে।’

আসন্ন নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের তালিকার শীর্ষে আছেন হিলারি ক্লিনটন। কয়েক দিন ধরেই নানাভাবে হিলারির সমালোচনা করে বক্তব্য দিচ্ছেন ট্রাম্প।

বিভিন্ন মন্তব্যের জন্য বেশ আলোচিতও ট্রাম্প। আর এসবের সমালোচনা করে বক্তব্য দিয়েছেন হিলারি ক্লিনটন। বিশেষ করে নির্বাচিত হলে যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিমদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করবেন এমন মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেন হিলারি। এসব কারণে এখন হিলারিকে ক্ষমা চাইতে বলেছেন ট্রাম্প। তবে হিলারির নির্বাচনী প্রচার কমিটি বলছে, ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে ক্ষমা চাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।

নির্বাচনী সমাবেশে হিলারির স্বামী সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনকে নিয়ে মন্তব্য করতেও ছাড়েননি ট্রাম্প। মনিকা লিউনস্কির সঙ্গে ক্লিনটনের যৌন সম্পর্কসহ বিল ক্লিনটনের বিরুদ্ধে ভয়াবহ অভিযোগ ছিল বলে উল্লেখ করেন তিনি।

সমাবেশে  ট্রাম্প বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালে হিলারি ক্লিনটনের ব্যক্তিগত ই-মেইল ব্যবস্থা ফাঁস হয়ে যায়। এ জন্য তাঁর (হিলারি) সাজা হওয়া উচিত।

‘যা তিনি করেছেন, তাঁর জন্য এখন হিলারির কারাগারে থাকা উচিত’, যোগ করেন ট্রাম্প।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts