November 20, 2018

অরল্যান্ডো নাইটক্লাবে হামলার দায় স্বীকার করলো আইএস

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ  ফ্লোরিডার অরল্যান্ডোতে অবস্থিত সমকামীদের নাইটক্লাবে হামলার দায় স্বীকার করেছে ইসলামিক স্টেট (আইএস)। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে। মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক এই জঙ্গি গোষ্ঠীর বার্তা সংস্থা ‘আমাক’ রবিবার দায় স্বীকারের এই বার্তা দিয়েছে বলে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এদিকে সিএনএন জানিয়েছে, ৯/১১ পর যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার সঙ্গে আইএস জড়িত। সেখানে বলা হয়, মারা যাওয়ার আগে মতিন ৯১১ এ (যুক্তরাষ্ট্রের ইমার্জেন্সি নম্বর) ফোন করে জানায়, সে আইএসের প্রতিশ্রুতি রক্ষায় এই হামলা চালিয়েছে। পরবর্তীতে পুলিশের গুলিতে নিহত হয় মতিন নামের এই হামলাকারী।

এদিকে রয়টার্স তার প্রতিবেদনে আইএসে বার্তা সংস্থা ‘আমাক’ এর বরাত দিয়ে জানায়, আমেরিকার ফ্লোরিডা স্টেটে গে নাইট ক্লাব লক্ষ্য করে সশস্ত্র হামলা, যাতে শতাধিক মানুষ নিহত বা আহত হয়েছে তা একজন আইএস যোদ্ধা চালিয়েছেন।

স্থানীয় সময় শনিবার মধ্যরাতে ফ্লোরিডার অরল্যান্ডো শহরের পালস নৈশক্লাবে ঢুকে গুলি চালায় এক বন্দুকধারী। প্রায় তিন ঘণ্টা পর সেখানে ঢুকে তাকে গুলি করে হত্যা করে পুলিশ। পরে হামলাকারীর পরিচয় সনাক্ত করে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা বলেন, ফ্লোরিডার ফোর্ট পিয়ার্স এলাকার বাসিন্দা ওমর সিদ্দিক মতিন (২৯) এই হামলা চালান।


জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার সন্দেহে এর আগে দুই দফায় এফবি আইয়ের তদন্তের মুখে পড়া মতিন হামলার সময় যুক্তরাষ্ট্র পুলিশে ফোন করে আইএসের প্রতি আনুগত্যের কথা বলেছেন বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। তবে মতিনের বাবা মীর সিদ্দিক বলেছেন, ধর্মীয় কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে তিনি মনে করেন না।

এদিকে এই হামলাকে ‘সন্ত্রাস ও বিদ্বেষের কাজ’ আখ্যায়িত করে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা গভীর শোক ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, আমাদের জনগণকে রক্ষার জন্য সমাধান আনতে আমেরিকানরা ঐক্যবদ্ধ।

রয়টার্স ও সিএনএন।

Related posts