November 13, 2018

অভিজিতের পিতার দাবি কওমি মাদ্রাসা নিষিদ্ধ করণের!

আজ শুক্রবার ব্লগার অভিজিত রায়ের পিতা অধ্যাপক ড. অজয় রায় বলেছেন, ‘আমরা একাধিক শিক্ষাব্যবস্থা চাই না। আমরা চাই একটি মাত্র শিক্ষাব্যবস্থা। সেটি হলো সাধারণ শিক্ষাব্যবস্থা। আর বাকি যে মাদ্রাসা ব্যবস্থা- কওমি মাদ্রাসা সেগুলোকে নিষিদ্ধ করতে হবে।’

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর শাহবাগে বাংলাদেশ টেনিস ফেডারেশনের মুক্তমঞ্চে স্বাক্ষর গ্রহণ কর্মসূচির উদ্বোধনকালে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষা কমিশনের সুপারিশ অনুসারে সারাদেশে কর্মমুখী, বিজ্ঞানমনস্ক, মানবিক মূল্যবোধভিত্তিক একই ধারার শিক্ষাব্যবস্থা চালুর দাবিতে গণস্বাক্ষর গ্রহণ শুরু করেছে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন।

সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন সংগঠনের সভাপতি কমরেড অজয় রায়ের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি নুর মুহাম্মদ তালুকদার।

অজয় রায় বলেন, ‘এটি সরকারকে খুব শক্ত হাতে নিতে হবে। এটিই আজ আমাদের দাবি এবং এই দাবিতে আমরা গণস্বাক্ষর সংগ্রহ করছি। এবং পরে তা প্রধানমন্ত্রীর নিকট পেশ করা হবে।’

তিনি বলেন, আলিয়া মাদ্রাসা শিক্ষাব্যবস্থার উপর সরকারের নিয়ন্ত্রণ থাকলেও সেখানে ধর্মীয় শিক্ষার উপরেই বেশি জোর দেয়া হয়। আর একটা মহল সরকারের সাথে সম্পৃক্ত হতে চায় না। তারা কওমি মাদ্রাসার দিকে ঝুঁকে পড়ে। কওমি মাদ্রাসাগুলো সরকারের নিকট থেকে কিছু নেয়ও না, সরকারের কাছে জবাবদিহিতাও করে না। সাম্প্রতিক সময়ে দেখা যায় ইসলামী সন্ত্রাসী গ্রুপগুলোর সদস্যরা বেশিরভাগই কওমি মাদ্রাসার ছাত্র। তাই এদেশে কওমি মাদ্রাসা বন্ধ করার জন্য সরকারের কাছে আবেদন জানাই।

অজয় রায় বলেন, ‘বিজ্ঞানমনস্ক মানে হল মানুষের জীবনের নানা সমস্যা বিজ্ঞানের চেতনায় সম্পৃক্ত হয়ে সমাধান করা। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সর্বস্তরের মানুষকে সমান অধিকার দেয়ার নামই মানবিক মূল্যবোধ। আর এ কাজগুলো করার দায়িত্ব নিতে পারে আমাদের সমাজের শিক্ষকরা। সমাজে মানুষের প্রতি মানুষের ভালবাসার প্রসার ঘটাতে হবে।’

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts