September 24, 2018

অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনে কৃষি জমি হুমকির মুখে

517
একেএম কামাল উদ্দিন টগর,নওগাঁ প্রতিনিধিঃ   নওগাঁর আত্রাই উপজেলার হাটকালু পাড়া ইউনিয়নের বান্দাইখাড়া বাজারের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া আত্রাই নদীর উঁচু চরে অবৈধ ভাবে বালু কেটে সাবাড় করা হচ্ছে। আত্রাই উপজেলার হাটকালু পাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা মোঃ আব্দুল খালেক (বিশা)ও বালু ঠিকাদার মোঃ সব্দুল শেখ সহ কয়েকজন ব্যক্তি এই বালু কাটার কাজে জড়িত বলে অভিযোগে পাওয়া গেছে। প্রতিদিন নদীর চর কেটে শত শত ট্রাক বালু কর্তন করে অবৈধ ভাবে হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে লাখ লাখ টাকা। যে ভাবে চর কর্তন করা হচ্ছে এভাবে কাটতে থাকলে বর্ষা মৌসুমে আশে পাশের কৃষি জমি হুমীকর মুখে পড়বে। অবৈধ ভাবে চর কাটা দেখে এলাকাবাসী হতাশ হয়ে পড়লেও দাপটের সহিত বালু কেটে যাচ্ছে, দেখার কেউ নেই।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার গত বুধবার  সন্ধ্যায় এ প্রতিনিধিকে বলেন,  বালু উত্তোলন বা চরকাটা বিষয়ে জানতে হলে অতিরিক্ত জেলা প্রসাশক (রাজর) নিকট জানতে হবে ।আমি এ বিষয়ে কোন বক্তব্য দিতে পারবো না।এরপরও চর কাটা বন্ধ হয়নি। সরেজমিনে গতকাল বুধবার দেখা যায় , আত্রাই উপজেলার  হাটকালু পাড়া বান্দাইখাড়া বাজারের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে আত্রাই নদীটি।বয়ে যাওয়া নদীর নিকটে অবস্থিত হাটকালু পাড়া ইউনিয়ন পরিষদ ভবন,বান্দাই খাড়া উচ্চ বিদ্যাল,হাটকালু পাড়া ইউনিয়নে ঐতিহ্যবাহী বাজার  (বান্দাই খাড়া বাজার নামে পরিচিত) ভ’মি অফিস,  আত্রাই নদীর উপর  নব- নির্মিত সেতু (বান্দাই খাড়া সেতু)টি আত্রাই নদীর মাত্র ৫০গজ দূরতেই¡ আত্রাই নদীর পাড়ের উঁচু চরের বালু কেটে ট্যাক্টরে  তোলা হচ্ছিল।

বালু কাটার স্থান থেকে মাত্র ১০-১৫ গজ দুরত্বেই ফসলের জমি দেখা গেছে। অপর দিকে আত্রাই ঘুরে দেখা যায় শুধু হাটকালু পাড়ার বান্দাই খাড়ায় নয় আত্রাই উপজেলার সৈয়দপুর মৌজায় সদুপুর গ্রামের পার্শ্বে আত্রাই নদীতে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে বালু ব্যবসায়ী আব্দুর রশিদ আত্রাই-নওগাঁ আ লিক সড়কের পার্শ্বেই রেখে হরহামশে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। এর ফলে ওই এলাকার বসবাসকারীদের চলাচলের যেমন অসুবিধার সৃষ্টি হয়েছে তেমনই রাস্তাদিয়ে স্কুলগামী কমলমতি শিশু,বৃদ্ধও যানবাহনের চলাচলের প্রতিবন্ধিকতা দেখা দিয়েছে। যে কোন সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনার  কবলে পড়ে প্রাণ হানী হতে পারে বলে এলাকাবাসী আশংঙ্কা করছে।এভাবেই আত্রাই নদীর বিভিন্ন স্থানে ৭/৮ টি স্থানে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় এক মাস ধরে নদীর পাড়ে উঁচু চরের বালু কাটা ও ড্রেজার মেশিন দিয়ে  অবেধ ভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। অপর দিকে আত্রাই গুড় নদীর বালু মহালের ইজারাদার  শ্রী নীরেন মহন্ত জানান, আত্রাই নদী থেকে অবৈধ পন্থায় বালু উত্তোলন ও নদীর উঁচু চর কাটার কারনে আমার ব্যবসার অর্থনৈতিক ভাবে চরম ক্ষতি হচ্ছে। এবিষয়ে কয়েক বার বিভাগীয় কমিশনার,রাজশাহী ,জেলা প্রশাসক,নওগাঁ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আত্রাইকে লিখিত ভাবে আবেদন করেছি। কিন্তু আজ পর্যন্ত প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ নিয়েছে বলে আমাদের চোখে পড়ে নাই।এদিকে সকরারী দলের লোকজন ও প্রভাবশালীরা এ কাজে জড়িত থাকায় স্থানীয় প্রশাসন বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছেনা।কৃষি জমিসহ নদীর চর ও নদীতে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধ বাবে বালু উত্তোলন হেফাজতের বিষয়টি খতিযে দেখতে উদ্ধৃর্তন কর্তৃপক্ষের আশু দৃষ্টি কামা করছেন এলাকাবাসী।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts