September 26, 2018

অবশেষে সেই এসআইকে র‌্যাবে বদলী

জাকিরুল ইসলাম, সিরাজগঞ্জ থেকেঃ সিরাজগঞ্জের তাড়াশ থানার এস আই আল-মামুনকে অবশেষে র‌্যাবে বদলী করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে এক প্রতিবন্ধি যুবককের ঘরে ইয়াবা রেখে ৩০ হাজার টাকা ঘুষ নেয়ার পর তা ফিরে দেয়ার অভিযোগ তদন্ত চলছে।

এ ঘটনার পর পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তার হস্তক্ষেপে সোর্সের মাধ্যমে সে ওই টাকা ফিওে দেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু ইউসুফ জানান, ঘুষ গ্রহন ও ফেরত দেয়ার বিষয়ে রায়গঞ্জ সার্কেলের এ.এস.পি মোতাহার হোসেন তদন্ত করছেন। তবে এখনও প্রতিবেদন পাওয়া যায়নি। তাড়াশ থানার ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, ৩ মার্চের মধ্যে কর্মস্থল ত্যাগের আদেশ দিয়ে পুলিশ সুপার ইতিমধ্যেই এস,আই আল-মামুনকে র‌্যাবে বদলীর আদেশ দেন। এ আদেশ অনুযায়ী বৃহস্পতিবার তিনি তাড়াশ থানা ত্যাগ করে নতুন কর্মস্থলে গিয়েছেন।

উল্লেখ, ১৭ ফেব্রুয়ারী রাতে তাড়াশ থানার ওই এস, আই ও সোর্স হাফিজুরকে নিয়ে তাড়াশের আসানবাড়ি গ্রামের প্রতিবন্ধি মামুনের বাড়িতে শয়ণ কক্ষের দরজা লাথি দিয়ে ভেঙ্গে ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে তল্লাসী চালায়। কিছু না পেয়ে ফিরে যাবার সময় সোর্স হাফিজুর ঘরের দরজার পাপোস হাতাহাতি করে কয়েকটি ইয়াবা উদ্ধার করে। এরপর মামলার ভয় দেখিয়ে তারা যুবকের কাছে ৪০ হাজার টাকা দাবী করেন। একপর্যায়ে ৩০ হাজার টাকা তাকে দেয়া হয়। প্রতিবন্ধি ওই যুবকের স্ত্রী মিতু দুবাই প্রবাসী। সম্প্রতি সে দেশে আসার পর পারিবারিক দ্বন্ধে পুলিশের সোর্স হাফিজুর ওই যুবকের আপন ভগ্নিপতি সত্বেও টাকা নেয়ার জন্য সে পরিকল্পিত ভাবে পুলিশ নিয়ে ইয়াবা উদ্ধারের এই নাটক সাজিয়েছিল।

এ ঘটনার পর সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহম্মেদের হস্তক্ষেপে ২১ ফেব্রুয়ারী ওই সোর্সের মাধ্যমে ভুক্তভোগীর টাকা ফিরিয়ে দেয়া হয় এবং ঘটনার তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। ###

Related posts