September 24, 2018

অপহৃত কিশোরী যুবলীগ নেতার বাসা থেকে উদ্ধার

ডেস্ক রিপোর্টঃ লক্ষ্মীপুরে অপহরণের ২৭ দিন পর যুবলীগ নেতা মাহবুবুল হক মাহবুবের বাসা থেকে এক কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের লামচরী গ্রামের ফেন্সী ভবনের ২য় তলায় ওই যুবলীগ নেতার ভাড়া বাসা থেকে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে। পরে তাকে লক্ষ্মীপুর সদর থানার মাধ্যমে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। তবে এ ঘটনার ঘটনার সাথে জড়িত আসামিদের পুলিশ ‘রহস্যজনক’ কারনে গ্রেফতার করেনি।

অপহৃত কিশোরীর বাড়ি সদর উপজেলার চররুহিতা গ্রামে। অপরদিকে অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা মাহবুবুল হক মাহবুব লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা যুবলীগের ১নং যুগ্ম আহ্বায়ক।

গত ২২ অক্টোবর দুপুরে নিজ বাড়ি থেকে ওই কিশোরীকে অপহরণ হয়। এ ঘটনায় ওই দিনই কিশোরীর বাবা খোরশেদ আলম পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। তাতেও কোন ফল না পেয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মো: সুজন (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে প্রধান আসামী করে ও ৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের কারেন।
অপহৃত কিশোরীর অবস্থান জানতে পেরে শুক্রবার সকালে বাবা খোরশেদ আলম খোকন গণমাধ্যমকর্মীদের জানায়, আমার মেয়ের খোঁজ পেয়েছি। সে এখন লামচরী এলাকার যুবলীগ নেতা মাহবুবের বাসায় আছে। মামলার আসামিরা আটক করে রেখেছে।

এমন সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় গণমাধ্যমকর্মীরা।

ওই যুবলীগ নেতা মাহবুবের বাসায় ওই কিশোরীকে পাওয়া যায়। যুবলীগ নেতাসহ মামলার আসামিরা তাকে ২৭দিন যাবত আটক রেখে নির্যাতন করে। ঘটনাস্থলেই ওই কিশোরী সাংবাদিকদের কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন আমাকে বাচাঁন আমার উপর অনেক নির্যাতন করা হয়েছে।

তার বাবা খোরশেদ বলেন, তার মেয়েকে অপহরনের পর ২৭দিন ধরে নির্যাতন করা হয়েছে। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবী করছি।

অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা মাহবুবুল হকের কাছে এ বিষয়ে চানতে চাইলে তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের উপর ক্ষেপে গিয়ে ক্যামেরা চিনিয়ে নেওয়া চেষ্টা করেন।

লক্ষ্মীপুর সিআইড’র ইনচার্জ মোঃ আবু জাহের সরকার বলেন, অপহৃত কিশোরীকে উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে বলে জানান তিনি।

উৎসঃ priyo

Related posts